We can bring 
Success
Respect
Money
 to your business

Facebook Ads

ফেইসবুক এ্যাডের ব্যাপারে আমাদের কাছে জানতে চাওয়া সম্ভাব্য প্রশ্নগুলোর উত্তর এখানে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। আপনার প্রশ্নটি এখানে না থাকলে অথবা উত্তরটি আপনার কাছে অস্পষ্ট মনে হলে নির্দ্বিধায় কল করুন: 01711-380679

ফেইসবুকে এ্যাড জিনিসটা কি? 

ফেইসবুক ব্যাবহারের সময় যে বিজ্ঞাপনগুলো দেখা যায়, যেগুলোর সাথে sponsored শব্দটি লেখা থাকে সেগুলো-কেই বলছি ফেসবুক এ্যাড। পেইজ প্রমোশন করা হয়েছে এরকম একটি এ্যাড নিচে দেয়া হলো।

এই এ্যাডের উপরের ডান কোনায় পেইজটির প্রোফাইল পিকচার, পাশে পেইজের নাম দেখা যাচ্ছে, ঠিক তার নীচে ট্যাগলাইন/স্লোগান বা এ্যাডের কথা রয়েছে। তার পরে এ্যাডের ইমেজ যার নীচে ডান দিকে লাইক বাটন রয়েছে। সবার সুবিধার্থে এখানে ফেইসবুকের অফিসিয়াল গাইড দেয়া হলো (টাচ করুন)

ফেইসবুকে এ্যাড দিতে সর্বনিন্ম কত টাকা লাগে? 

ফেইসবুকের সর্বনিন্ম বাজেট দৈনিক এক ডলার (USD $1) তবে আমাদের মাধ্যমে এ্যাডভার্টাইজিং করতে হলে এই বাজেটের পরিমান কিছুটা আলাদা হবে। আমরা দুইটি ধাপে এ্যাড দিয়ে থাকি। (১) প্রথমবার এবং (২) সাধারন।​

প্রথমবার:- নতুন বা পরীক্ষামুলকএ্যাডের জন্য আপনাকে কমপক্ষে ৩০০০ টাকা  খরচ করতে হবে। আমরা $30 খরচ করে তিনদিন একটি এ্যাড চালাব।  আপনার বজেট এর চেয়ে বড় হলে প্রতি USD ১০০ টাকা (+২% ফি বিকাশ/রকেটের ক্ষেত্রে) হিসেবে নেয়া হবে।​

সাধারন: পরবর্তিতে যে কোন বাজেটের এ্যাড দিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আমাদের সার্ভিস চার্জ (ডলার এর দাম সহ) প্রতি USD = 100Tk*​​

*2% fee যোগ হবে বিকাশ/রকেটের ক্ষেত্রে                   

বাজেটের অনুপাতে এ্যাডের ফলাফল হয়ে থাকে। দৈনিক ৫ ডলার খরচ করলে যতগুলো ক্লিক পড়বে (বা যতবার দেখানো হবে) ৫০ ডলার খরচ করলে ফলাফল তার দশগুন বেশী হবে। আপনার সুবিধার্থে এখানে একটি ধারনা দেয়া আছে নীচের বাজেট আইডিয়ায় টাচ করুন:

বাজেট আইডিয়া আইডিয়া 

**এর চাইতেও কম বাজেটে ফেইসবুক এ্যাড গ্রহন করে। কিন্তু এর চাইতে কম বাজেটের এ্যাড থেকে ভালো রেজাল্ট আশা করা যায় না। বরং পুরো ফেইসবুক এ্যাডভার্টাইজিং বা আমার সার্ভিস কোয়ালিটি নিয়ে অহেতুক প্রশ্ন উঠতে পারে। আপনার বাজেট ৩০০০ টাকা বা দৈনিক ১০০০ টাকা’র কম হলে যোগাযোগ না করার জন্য অনুরোধ করছি।

ফেইসবুকে তো নিজেই এ্যাড দেয়া যায়। তাহলে কেন এজেন্সির কাছে যেতে হবে কেন? 

এ্যাড মানে শুধু ডলার খরচ নয়; এটি সৃজনশীলতা, অভিজ্ঞতা ও আরো কিছু জিনিসের সমন্বয় । টেকনিক্যালি আপনার একটি পেমেন্ট ম্যাথড হলেই এ্যাড দিতে পারবেন। ফেইসবুক সব একাউন্টের সাথেই এ্যাড তৈরী ও পাবলিশ করার ব্যাবস্থা করে দিয়েছে, অনেকে সেটা ব্যাবহার করে ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে। কোন এজেন্সির সাহায্য তিন কারনে প্রযোজন হতে পারে:-

১) অভিজ্ঞতা: পেশাদার আর অনভিজ্ঞ কাজের পার্থক্য অনেক। এজেন্সি অনেক ধরনের ব্যাবসার হাজারো এ্যাড দিয়ে আসছে বছরের পর বছর। তারা Facebook community standard, Ad policy, Conversion rate, Bid, Placement, Detailed interest  বিষয়গুলো মাথায় রেখে এ্যাডভার্টাইজিং করে। এজেন্সি হিসেবে আমরা চেষ্টা করি আমাদের প্রতিটি কাস্টমার তার বিনিযোগের সর্বোচ্চ ফল পায়।

২) পেমেন্ট চ্যানেল: ফেইসবুককে পেমেন্ট করার ব্যাবস্থা করাটা অনেক ঝামেলার ব্যাপার। ব্যাংকে অনেক ফরমালিটি। দেশের বাইরের কারো সাহায্য নিয়মিত চাওয়াও অস্বস্তিকর। এ কারনেও অনেকে পুরো ব্যাপারটি এজেন্সির হাতে দিয়ে একটি ওয়ান স্টপ সার্ভিস চায়।

৩) ক্রিয়েটিভ কন্টেন্ট: এজেন্সিগুলো সাধারনত এ্যাডের কন্টেন্ট তৈরী করে দেয়। এ জন্য সাধারনত আলাদা পেমেন্ট নেয়া হয়। কমপক্ষে ৩০ ডলারের এ্যাড হলে আমরা এ্যাডের কন্টেন্ট ফ্রি তৈরী করে দেই ।

আমার এ্যাডটি কতবার দেখানো হবে? 

এটি ফেইসবুকের নিজস্ব কিছু নিয়মে নির্ধারিত হয় (বাজেট, এ্যাড কোয়ালিটি স্কোর, প্রতিদ্বন্দী এ্যাডের পরিমান ও বাজেট ইত্যাদী)। প্রতি ক্লিকের হিসেবে ৫০০০ টাকা বাজেটে মোটামুটি ৭০০-৩০০০ টি ক্লিক হতে পারে। প্রতি ১ হাজারবার দেখানোর হিসেবে এ্যাডটি ১ থেকে ২ লক্ষবার দেখানো হবে।

কিভাবে বুঝব কত টাকা খরচ হলো বা কতজন এ্যডটি দেখল? 

প্রতিদিন এ্যাডের রিপোর্টের কপি ই-মেইলে পাঠানো হবে। এ্যাড চলাকালিন সময় লাইভ রিপোর্ট-ও দেখে যেতে পারেন। এছাড়া শেষে বিন্তারিত রিপোর্ট ইমেইলে পাঠানো হয়। 

আমি আপনাদের সার্ভিস যাচাই করার জন্য সর্বনিন্ম ৩০০০ টাকার-ই এ্যাড দিতে চাই। এই টাকার বিনিময়ে আমি কি পাব?

ফেইসবুকে আপনার নিজস্ব এ্যাড তৈরী, সেই এ্যাডের জন্য ৩০ ডলারের ক্রেডিট এবং পরদিন পুর্ণাঙ্গ রিপোর্ট।

কাত দিনের জন্য এ্যাড দিলে ভাল হয়? 

পত্রিকার বিজ্ঞাপন যেমন বেশীদিন চালালে বেশী মানুষ দেখবে, ফেইসবুকের বিজ্ঞাপন ঠিক তেমনটি নয়। আপনার বাজেট অনুযায়ী এটি দেখানো হবে। বাজেট ঠিক রেখে দিনের সংখ্যা বাড়িয়ে দিলে, প্রতিদিনের দেখানোর হার কমে আসবে। আপনার ২০০ ডলার ৩ দিনে যদি ২০০০০ ক্লিক এনে দেয় তাহলে ১০ দিনেও ২০০০০ -ক্লিকই এনে দিবে। এ্যাডের সময় বাড়ালে প্রতি দিনের পাফরমেন্স এবং খরচ কম বা বেশী হওয়া ছাড়া অন্য কোন সুবিধা নেই। আপনি মোট যত টাকা খরচ করছেন, সে অনুযায়ী ফলাফল হবে। এ্যাড কম দিন চলুক বা বেশী, মোট ফলাফল একই থাকবে।

ফেইসবুকের এ্যাড দেখানোর ফর্মুলা 

এ্যাড পারফরর্মেন্স = (বাজেট/সময়) X কোয়ালিটি স্কোর
অর্থাৎ=
বাজেট বাড়ালে পারফরর্মেন্স বাড়বে (সময় ও কোয়ালিটি একই হলে)
সময় বাড়ালে পারফরর্মেন্স কমবে (বাজেট ও কোয়ালিটি একই হলে)
কোয়ালিটি বেড়ে গেলে পারফরর্মেন্স বাড়বে (বাজেট ও সময় একই হলে)

আনুমানিক কত জন ফ্যান হতে পারে ৩০০০ টাকার? 

আসলে কতজন ফ্যান হবে সেটা নির্দিষ্টভাবে বলা যায় না। যদি শুধু বাংলাদেশ টার্গেট করা হয়, তাহলে প্রতিটা ক্লিকের জন্য আনুমানিক খরচ হবে 1.5 সেন্ট থেকে 12 সেন্ট পর্যন্ত (July 2015 হিসেবে) অর্থাৎ 250 থেকে 2000+ ভিজিটর আপনার পেইজ ঘুরে আসবে। যেসব ভিজিটরের আপনার পেইজ ভালো লাগবে, তারাই লাইক দিয়ে ফ্যান হবে। যার ভালো লাগবে না,সে হয়তো ‘লাইক’ করবে না।

নিচের দুইটা স্ক্রিনশট 
$20
 এর ফলাফল
ভাল করে লক্ষ করুন 
20$ Performance (Low Performance)
20$ Performance (High Performance)

আমি ফেইসবুকে এ্যাড দিতে চাই। এখন আমাকে কি করতে হবে? 

আপনার প্রতিষ্ঠানের একটি ফেইসবুক পেইজ থাকলে ভালো হয়, না হলে অন্তত একটি ওয়েবসাইট থাকতে হবে। এ্যাডের মাপ উপরে দেয়া আছে। সর্বোচ্চ ২৫ টি অক্ষরের টাইটেল ও ৯০ টি অক্ষরের এ্যাডের কথা দেয়া যায়। এই হিসেব সাদা স্পেস সহ। সাথে এ্যাডের ছবিটি নিয়ে আসবেন। আমরা কোন বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠান নই। এটা একান্তই ব্যাক্তিগত উদ্যোগ। আমার সাথে দেখা করতে বা এ্যাড দিতে চাইলে অফিস আওয়ারের বাইরে যোগাযোগ করতে পারেন। আমি মোহাম্মদপুর জাপান গার্ডেন সিটির কাছে থাকি। প্রতি ডলার ১০০ টাকা হিসেবে বাজেটের টাকা এ্যাড দেয়ার সময় দিতে হবে। এ্যাড শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও কোন টাকা বেঁচে গেলে তা ফেরত দেয়া হবে। ফেইসবুক পেইজের এ্যাড দেয়ার জন্য আমাকে আপনার পেইজের এ্যাডভার্টাইজার করে দিতে হবে। এ্যাডের জন্য লেখা ৯০ ক্যারেক্টার এবং ছবি ১২০০ X ৬২৮ পিক্সেল
(Text: 90 characters, Image Specs: 1200x628px [for website ad]; 1200x444px [for fan page ad]; 600X600px for website multi image scroll ad ) হতে হবে। ফেইসবুকে এ্যাড এর জন্য ছবির মাপ ও লেখার পরিমানের বিস্তারিত তথ্য এই লিঙ্কে পাওয়া যাবে।

আপনার কি ইম্প্রেশনের নিশ্চয়তা দিতে পারছেন? 

এখানে ক্লিক বা ইম্প্রেশনের যে সংখ্যা বলেছি সেটার আমারা নিশ্চয়তা দিচ্ছি না। এই সংখ্যাগুলো এসেছে এই মুহুর্তে যেই এ্যাডগুলো আমারা চালাচ্ছি সেগুলো থেকে। যেমন ক্লিকের ক্ষেত্রে $0.04 থেকে $0.05 খরচ পড়ছে। যদিও বিড দেয়া আছে $0.05 খেকে $0.08 । আর ইম্প্রেশনের ক্ষেত্রে খরচ পড়ছে $0.000014 এর সামান্য বেশী। কিন্তু প্রতিজন ফেইসবুক ব্যাবহারকারী যেহেতু ৫ থেকে ১০ বারেরও বেশী দেখছে সেজন্য বলেছি ১ থেকে ২ লক্ষ বার, প্রতিটা ইম্প্রেশন হিসেবে এই সংখ্যাটি আরো অনেকগুন বেড়ে যাবে। এই ক্ষেত্রে আমরা সাধারনত বিড দেই $0.03 থেকে $0.05 । বিডের ক্ষেত্রে সাধারনত এ্যাড তৈরীর সময় ফেইসবুক যে রেন্জ রেকমেন্ড করে, আমার তার মাঝামাঝি দিয়ে থাকি।

টাকা দেয়ার কতক্ষন পরে আমার এ্যাড চালু হবে? 

সাধারনত টাকা পৌঁছানোর দিনেই এ্যাড সাবমিট করে দেই। কোন কোন ক্ষেত্রে (অসুস্থতা, হলিডে বা অন্য কোন জরুরী ব্যাপার হলে)  হয়তো ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। এ্যাড সাবমিটের পরে ফেইসবুক এ্যাপ্রুভ করে লাইভ করে দেয়। যদিও ৯০% এ্যাড ১০ মিনিটের মধ্যেই চলতে শুরু করে কিছু এ্যাড ছাড় পেতে ৭২ ঘন্টা যর্যন্ত সময় নিতে পারে।

আমার দেয়া টাকা কিভাবে ফেইসবুক খরচ করবে? 

এ্যাড তৈরীর সময় দুইটি অপশন দেয়া হয়। যেখান থেকে আপনার সুবিধামতো বিলিং অপশন বেছে নিতে পারেন।:- (১) ক্লিকের হিসেব (CPC): যখন কোন ফেইসবুক ব্যাবহারকারী আপনার এ্যাডটি দেখে এ্যাডটিতে ক্লিক করবে, তখন ফেইসবুক চার্জ করবে। (বাংলাদেশের জন্য প্রতি ক্লিকের খরচ সাধারনত $.03-$.50 (২) ইম্প্রেশনের হিসেব (CPM): প্রতি ১০০০ বার দেখানোর জন্য। (বাংলাদেশের জন্য প্রতি ১০০০ বার দেখানোর খরচ সাধারনত $.01-$.35)

এ্যাডটি কতদিন চলবে? 

এটি আসলে আপনার সিদ্ধান্ত। আপনি আপনার বাজেটের ডলার আপনার সুবিধামতো দিনে খরচ করতে পারেন। ফেইসবুকের স্মার্ট এ্যালগরিদম ওই বাজেটকে ওই সময়ের মধ্যেই খরচ করতে চেষ্টা করে। যেমন $50 বাজেট আপনি ১ দিন, ২ দিন, ৫ দিন ইত্যাদী মেয়াদে খরচ করতে পারেন। ওই সময়ের মধ্যে ফেইসবুক বাজেট খরচ করতে না পারলে বাড়তি টাকা থেকে গেলে আমি রিফান্ড করে দেই।

কতজন আমার পেইজে এ্যাডের মাধ্যমে এসেছে তার সঠিক সংখ্যা কি জানা যায়? 

হ্যাঁ জানা যায়। এটা ফেইসবুক রিপোর্টে থাকে।

আমার এ্যাড চলাকালিন সময়ে আমার ক্রেডিট টপআপ করতে চাই, সেক্ষেত্রে আমাকে কি করতে হবে? 

আমাদের পেমেন্ট করে যে কোন সময় বাজেট বাড়িয়ে নিতে পারেন। আমরা প্রতি ডলার বরাদ্দের জন্য ১০০ টাকা চার্জ করি। যেমন ৫০ ডলারের এ্যাডে ৫০০০ টাকা ও ১০০ ডলারের এ্যাডে ১০ হাজার টাকা ইত্যাদি।

ডলারের দাম অনেক কম। আপনারা ১০০ টাকা করে নিচ্ছেন কেন? 

কারন আমরা কোন সার্ভিসচার্জ নিচ্ছি না। অনলাইন এ্যডভার্টাইজিং একটি প্রফেশনাল সার্ভিস, শুধুমাত্র ডলার বিক্রি নয়। ডলারের রেট ধরে প্রাইসিং এদেশে আমরাই শুরু করি যখন অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো অন্যভাবে কোটেশন করত যেমন প্রতি ক্লিক ২ টাকা বা প্রতি লাইক ৫ টাকা ইত্যাদি। কিন্তু আমাদের  ডলারের রেট এর নিয়মের স্বচ্ছতার জন্য আজকাল প্রায় সবাই এটা ব্যাবহার  করছে। এখানে আমরা একটি ফ্ল্যাট রেট দেয়ার চেষ্টা করেছি। এই টাকার মধ্যে ডলারের দাম + ব্যাংকের চার্জ + মেইন্টেন্যান্স খরচ + আমাদের প্রফিট সবকিছুই আছে । আলাদা ভাবে এইসব হিসেব করার চাইতে ডলারের রেটে সবকিছু নিয়ে আসায় যে কোন বাজেটের এ্যাডের হিসেব সহজেই করা যায়।

Thanks for your mail.
We will get back you soon.

Please write to us any kind of query